করোনা সংক্রামন রোধে সচেতনতা মূলক পরামর্শ

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব রোধে জনসচেতনতা মূলক তথ্যাবলি:

 

রোগের লক্ষণ:

  • জ্বর, কাশি, গলা ব্যাথা ও শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যাই মূলত প্রধান লক্ষণ
  • জ্বর দিয়ে ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয় এরপরে শুকনো কাশি, গায়ে ব্যাথা দেখা দিতে পারে
  • প্রায় এক সপ্তাহ পরে শ্বাসকষ্ট শুরু হতে পারে
  • সাধারণত রোগের উপসর্গগুলো প্রকাশ পেতে গড়ে পাঁচ দিন সময় নেয়; তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ভাইরাসটির ইনকিউবেশন পিরিয়ড ১৪ দিন পর্যন্ত স্থায়ী থাকে।

corona awareness 01

 

 সচেতনতা মূলক পরামর্শ:

  • যেখানে সেখানে কফ ও থুথু ফেলবেন না
  • হ্যান্ডসেক বা কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন
  • কিছুক্ষন পরপর সাবান দিয়ে (অন্তত ২০ সেকেন্ড) হাত ধুয়ে হাত পরিস্কার রাখুন
  • অপরিস্কার হাত দিয়ে নাক, মুখ, চোখ স্পর্শ করবেন না
  • হাঁচি বা কাশি দেবার সময় টিস্যু ব্যবহার করুণ অথবা কাপড় বা বাহুর ভাজে নাক-মুখ ঢেকে ফেলুন
  • ব্যবহৃত টিস্যু ঢাকনাযুক্ত ময়লার পাত্রে ফেলুন
  • সবসময় স্পর্শ করতে হয় এমন স্থান যেমন: গেইট বা দরজার হাতল, লিফটের বোতাম, সিড়ির রেলিং ইত্যাদি জীবানু নাশক দ্বারা পরিস্কার করে রাখুন
  • চলাচল সীমিত করুণ ও গণজমায়েত এড়িয়ে চলুন
  • গণপরিবহন বা জণসামগম স্থলে মাস্ক ব্যবহার করুন
  • আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন এবং অন্তত ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন
  • আক্রান্ত ব্যক্তি ও তার পরিচর্যার ক্ষেত্রে মাস্ক ব্যবহার করুন
  • জ্বর, সর্দি, কাশি উপসর্গ দেখা দিলে পরিবারের অন্য সদস্যদের থেকে আলাদা থাকুন
  • রোগীর ব্যবহার্য জিনিসপত্র অন্যরা ব্যবহার করবেন না
  • মাছ, মাংস ভাল করে রান্না করে খাবেন
  • এই রোগের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তি ও বিদেশ থেকে আগত ব্যক্তির কোয়ারেন্টাইনে থাকা নিশ্চিৎ করুন
  • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ ও সরকারের নির্দেশনা মেনে চলুন

corona awareness 02

 

আতঙ্কিত হবেন না বরং সচেতন থাকুন। এই রোগের উপসর্গ মনেহলে নিম্ন লিখিত নম্বরে যোগাযোগ করুন:

 

স্বাস্থ্য বাতায়ন-স্বাস্থ্য অধিদপ্তর: ১৬২৬৩
আইইডিসিআর-এর হটলাইন নম্বর: ১০৬৫৫ অথবা ০১৯৪৪৩৩৩২২২
জাতীয় কল সেন্টার: ৩৩৩
জাতীয় হেল্পলাইন: ১০৯
বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন: ০৯৬১১৬ ৭৭৭৭৭
আইসিডিডিআরবি: ০১৪০১১৮৪৫৫৪-৫৬

 

 

প্রচারে:
এডাব
বাংলাদেশে কর্মরত বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাসমূহের সমন্বয়কারী সংগঠন